সংস্কৃতি কী । What is Culture । CAJ Academy

সংস্কৃতি কী । What is Culture

সংস্কৃতি হলো সমাজস্থ মানুষের বৈশিষ্ট্যপূর্ণ পরিচয়ের সুস্পষ্ট ইঙ্গিতবহ একটি উপাদান। অতীতকাল থেকে আজ পর্যন্ত সকল যুগে এবং বিশ্বের সকল মানব সমাজে স্বতন্ত্র সংস্কৃতির সন্ধান পাওয়া যায়। প্রকৃতপক্ষে সংস্কৃতি হলো মানুষের একক মাধ্যম বৈশিষ্ট্য যার মাধ্যমে মানুষ জীব জগতে স্বতন্ত্র মর্যাদায় সমীহীন হয়েছে।

Advertisement

“সংস্কৃতি ” শব্দটি ইংরেজী “Culture ” শব্দটির বাংলা রূপায়ন। এটি এসেছে ল্যাটিন “Colture ” থেকে যার অর্থ চাষ করা।ইংরেজিতে এর পরিপূর্ণ রূপ হচ্ছে, পরিশীলিত মন,মার্জিত রূচি ও ব্যবহার। এ শব্দটির প্রবর্তক দার্শনিক ফ্রান্সিস বেকন, ষোল শতকের শেষ দিকে। (সূত্র,”primitive culture “,E.B.Tylor)

সংস্কৃতি কী

দার্শিনিক হেগেল তাঁর গ্রন্থে উল্লেখ করেছেন” আমরা যা তাই আমাদের সংস্কৃতি। “

অর্থ্যাৎ, আমাদের দৈনন্দিন খাদ্যভ্যাস,গোসলের আগে ও পরের নির্দিষ্ট বা অনির্দিষ্ট কাজ সমূহ, আমাদের কথা বলা অথবা কথা বলার ধরণ,আমাদের সমাজের লৌকিক ও পারলৌকিক কাজ এক কথায় একটা মানব শিশু তার সমাজে জন্মগ্রহণ করার পর থেকে শুরু হওয়া সামাজিক অনুষ্ঠান এবং তার মৃত্যুর পর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার শেষ পর্যন্ত যত ধরণের আচার ও সামাজিক রীতিনীতি তাদের প্রত্যেকটাই সংস্কৃতির ক্ষুদ্রতম অংশ।

লোই (Lowie) বলছেন , সংস্কৃতি একটি বংশগত উপাদান ; এটি উওরাধিকার সূত্রে পাওয়া যায়। একটি স্বতন্ত্র লোকটা তার তার সমাজ থেকে যে বিশ্বাস, রীতি, কলাকৌশল, খাদ্যাভাস এবং দক্ষতা অর্জন করে তার সমষ্টিকে আমরা সংস্কৃতি বলি।এগুলো তার নিজের সৃষ্টি না বরং আনুমানিক বা ধারাবর্জিত শিক্ষার মাধ্যমে অতীত থেকে উওরাধিকার সূত্রে পাওয়া বস্তুর মতো তার কাছে চলে এসেছে।”

সংস্কৃতি কী
সংস্কৃতি কী

ম্যালিনোস্কি তার A scientific theory of culture, (p-67) বলেছেন ” সংস্কৃতি হলো মানুষের আপন কর্মের সৃষ্টি, যার মাধ্যমে সে তার উদ্দেশ্য সাধন করে। “

রালফ্ লিনটন তাঁর The culture Background of personality, তে বলেছেন ” সংস্কৃতি হলো অর্জিত আচরণের বাহ্যিক গঠন এবং আচরণের ফলাফল যার গঠনমূলক উপাদান সমূহ একটি বিশেষ সমাজের সদস্যদের দ্বারা ভাগাভাগী ও সম্প্রসারিত হয়।”

অর্থাৎ, সংস্কৃতি কোন রকম আতিশয্য বা উন্নত সভ্যতার গূঢ়ার্থ প্রকাশ করেনা, বরং মানব সমাজের সদস্যদের সামাজিক ব্যবহারের, পরিমিতি আদব -কায়দা, রীতিনীতি, বিশ্বাস, নৈতিকতা, ভাষা,সঙ্গীত, শিল্প বাস্তব উদ্দেশ্যের পরিবর্তন ও সংস্করন। একেকটা স্বতন্ত্র মানুষ তার স্বতন্ত সংস্কৃতির ধারক।

100% LikesVS
0% Dislikes

Write a Comment

Share It