প্রকৃতির সৌন্দর্য কি সেলফিতেই! । CAJ Academy

মো. তারেক হোসাইন

এককালে সোজা হয়ে দাড়িয়ে ছবি তোলাকে ভদ্রতা মনে করা হত। কারণ তখনকার ছেলে মেয়ে ও শিক্ষিত সমাজ সবাই সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে ছবি তোলাকে ভদ্রতা হিসাবে নিত। ছবি তোলার সময় কেউ যদি হালকা বাকা হত কিংবা চুলগুলো এলো মেলো থাকত, ফটোগ্রাফার ছবি না তুলে আগে তার চুল ঠিক করে দিত। কালের বিবর্তনে সোজা হয়ে ছবি তোলাকে লুজারের তালিকায় ফেলে দিয়েছে। এখন মানুষ আর সোজা হয়ে ছবি তোলেন না। কেউ যদি সোজা হয়ে ছবি তুলেতে চায়, তাকে উল্টো বলা হয় একটা পোজ নাও না!

সেলফি

আমাদের মধ্যে আরো পরিবর্তন এসেছে! এখন আমরা পেছনের ক্যামেরা দিয়ে ছবি তুলতে চাই না। সামনের ক্যামেরা দিয়েই ছবি তোলতে চাই। মানুষ এমন হয়ে গিয়েছে, যদি তার সামনের ক্যামেরা ভাল না হয় তাহলে মোবাইল ঘুরিয়ে পেছনের ক্যামেরা দিয়ে ছবি তোলেন। যেটাকে বলা হয় সেলফি।

২০১৩ সালে স্যামসাংয়ের একটি জরিপে পাওয়া গেছে, ১৮ থেকে ২৪ বছর বয়সী মানুষের তোলা ছবির ৩০ শতাংশই সেলফি।

যুক্তরাজ্যের সংস্থা অপিনিয়াম রিসার্চ ২০১৩ সালে একটি জরিপ চালায় ২ হাজার ৫ জন প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তির সেলফি তোলার অভ্যাসের উপর। দেখা যায় তাদের মধ্যে অর্ধেক সংখ্যক ব্যক্তিই সেলফি তোলায় অভ্যস্ত, ৩৬ শতাংশ লোক শুধু সেলফি তোলেনই না তা এডিট করে প্রকাশ করেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

আমরা এখন কোথাও ঘুরতে গেলে প্রকৃতি উপভোগ করিনা। বুক ভরে নিশ্বাস নিই না। সুন্দর জায়গা হলেই হয়ে যায় আমাদের ফটোসেশনের জায়গা। মুখকে বিভিন্ন আঁকা বাঁকার মাধ্যমে ছবি তুলি। আমরা কি একবারও চিন্তা করিনা! সৃষ্টিকর্তা আমাদের সুন্দর একটা মুখ দিয়েছেন। তা বাঁকা করে যখন ছবি তুলি তখন তা প্রতিবন্ধিতার চিহ্ন বহন করে!

আরেক গবেষণায় উঠে এসেছি মেয়েদের ঠোট বাঁকা করে ছবি তোলার উদ্দেশ্য হচ্ছে পুরুষদের যৌবিক আনন্দ দেওয়া আর নিজেকে আবেদময়ী হিসাবে জানান দেওয়া।

মানুষ এখন প্রকৃতিকে উপলব্ধি করা ভুলে গিয়েছে। সেলফি তোলা মানুষের এখন এমন এক নেশায় রূপান্তরিত হয়েছে যা অনেক সময় মৃত্যুর কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

চিকিৎসকরা এর নাম দিয়েছন সেলফি ম্যানিয়া। এ সেলফি ম্যানিয়ার কারণে কমে যাচ্ছে মানুষের ব্যক্তিত্ব। দিন দিন মানুষের আত্মবিশ্বাস হ্রাস পাচ্ছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবি আপলোডের পর লাইক, কমেন্ট কম হলে হতাশায় ভোগছেন!

এ সেলফিতে বাদ যাচ্ছে না ওয়াশ রুমের আয়নাও। আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে তোলা হচ্ছে মিরর সেলফি। আমরা প্রকৃতিকে ভুলে যাচ্ছি। আমরা ভুলে যাচ্ছি আমাদের যে একটা আত্মা আছে। যে আত্নার প্রয়োজন বুক ভরা নিশ্বাস!

লেখক : শিক্ষার্থী

আইডি: ১৭৪০৭০৭৯

তৃতীয় বর্ষ (২৩ তম ব্যাচ)

যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ

Advertisement

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়

50% LikesVS
50% Dislikes

Write a Comment

Share It