Like our Facebook Page

Advertisement

গণমাধ্যমের উদ্দেশ্য । গণমাধ্যমের মৌলিক কার্যাবলী

মোঃ সাইফুল ইসলাম

গণমাধ্যমের উদ্দেশ্য  গণমাধ্যমের মৌলিক কার্যাবলী

গণমাধ্যমের উদ্দেশ্য প্রধানত চারটি। যথা –

১. তথ্য সরবরাহ করা
২. শিক্ষিত করা
৩. প্রভাব বিস্তার করা
৪. বিনোদন দেয়া

.

তথ্য সরবরাহ করা:

সংবাদ প্রচার গণমাধ্যমের প্রধান উদ্দেশ্য। প্রেস সবসময় নতুন তথ্য প্রচার করে। দৈনন্দিন ঘটনা ছাড়াও কতগুলো নৈমিত্তিক তথ্যের জন্যে পাঠক গণমাধ্যমের ওপর নির্ভরশীল। ইন্টারনেটের কল্যাণে আমরা যে কোন স্থান থেকেই দেশ বিদেশের সর্বশেষ সংবাদ মুহূর্তের মধ্যে পেয়ে যাচ্ছি। আবহাওয়া, শেয়ার বাজার,সিনেমা, দিনপঞ্জি প্রভৃতির সব তথ্যই এখন আমাদের হাতের মুঠোয়।

শিক্ষা :

বর্তমানে শিক্ষা বিস্তারের অন্যতম হাতিয়ার হলো গণমাধ্যম। সংবাদপত্র, রেডিও, টেলিভিশন ও
ইন্টারনেটের কল্যাণে আমরা যে কোন কিছুই চায়লে শিখতে পারছি।

 বর্তমানে অনেক টিভি চ্যানেলে বিভিন্ন শিক্ষামূলক অনুষ্ঠান প্রচারিত হচ্ছে। অনলাইনে আমরা বিভিন্ন শিক্ষা মূলক অনুচ্ছেদ খুঁজে পাই। আর বর্তমানে প্রায় সকল সংবাদপত্রেই শিক্ষা বিষয়ক আলাদা পৃষ্ঠা থাকে এবং এটি পাঠকদের কাছে আবেদন ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে। এছাড়া সংবাদপত্র সংবাদ নিবন্ধ থেকে শুরু করে প্রতিটি বিষয়ের দ্বারা জনগণ কে সচেতন ও শিক্ষিত করে তুলছে।


 

প্রভাবন :

প্রাচীনকাল থেকেই গণমাধ্যম মানবজীবনকে প্রভাবিত করে আসছে। বই,বার্তা,ম্যাগাজিন, সংবাদপত্র, বেতার,শব্দ, ভিডিও, এনিমেশন, মোশন গ্রাফিক্স প্রভমতির মাধ্যমে মানুষের মনকে নিজের দিকে টেনে আনতে সচেষ্ট হয়। 

গণমাধ্যমের প্রভাব মানুষের মনে খুবই শক্তিশালী। গণমাধ্যমে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশের মাধ্যমে এটি জনগণের আস্থা অর্জন করেছে। গণমাধ্যমকে মানুষ বিশ্বাস করে বলেই এটি যেকোনো বিষয়ে জনগণের ওপর প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা চালায়। গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ ছাড়াও সম্পাদকীয় মন্তব্য এবং কলাম প্রকাশ করা হয়। ঐ সকল অভিমতও জনগণ কে দারুনভাবে প্রভাবিত করে ।

বিনোদন :

গণমাধ্যম তথ্য সরবরাহ, ব্যাখ্যা ও শিক্ষাদানের পাশাপাশি বিনোদন প্রদানেও বিরাট ভূমিকা পালন করে। বিনোদনের মাধ্যমে মানুষের কর্মস্পৃহা বাড়ানো যায়। আর বর্তমানে বিনোদনের প্রধান উৎস হল গণমাধ্যম। 

চলচ্চিত্র, রেডিও- টেলিভিশন, টক শো,সেলেব্রিটি শো প্রভৃতির মাধ্যমে জনগণকে ব্যাপক বিনোদিত করা সম্ভব হচ্ছে। যদিও টেলিভিশন, রেডিও অনলাইনের মত বিনোদন সংবাদপত্র দিতে পারে না। তবুও সংবাদপত্র নান্দনিক ফিচার, হাস্যকর কৌতুক- গল্প, ম্যাগাজিনের মাধ্যমে পাঠকদের বিনোদিত করে চলেছে।



লেখক : 
৪র্থ বর্ষ (২১ তম ব্যাচ)
যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়

আরো দেখুন :
গণমাধ্যমের চার তত্ত্ব 

0Like
0Dislike
50% LikesVS
50% Dislikes
Saiful Islam: I am Md. Saiful Islam, Founder of CAJ Academy. I Have Completed my Graduation and Post Graduation from the Department of Communication and Journalism, University of Chittagong. Follow me on facebook : facebook.com/saifcajacademy , Instagram : instagram.com/saif_caj_academy
Advertisement